July 27, 2021, 4:23 am


হাজীগঞ্জে মাইক্রোবাস চালক খুনের ঘটনায় ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক

মো. মহিউদ্দিন আল আজাদ:

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌর এলাকার টোরাগড় গ্রামের মিজিবাড়ীতে হাত-পা বেধে মজনু হোসেন (৩০) নামে যুবককে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুনের ঘটনায় হত্যার শিকার মজনুর ছোট ভাই মফিজের স্ত্রী মাহমুদাকে আটক করেছে পুলিশ।

হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন রনি বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য খুন হওয়া মজনুর ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে থানায় আনা হয়েছে। তবে আটক করা হয়নি। আটক করা হলে সংবাদকর্মীদের বিস্তারিত জানানো হবে।

সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) গভীর রাতে ৭ নম্বর ওয়ার্ড টোরাগড় আনোয়ার মিজির বাড়ীর দ্বিতীয় তলায় এই ঘটনা ঘটে। খুন হওয়া মজনু ওই এলাকার আমিন মিয়ার ছেলে। পেশায় সে একজন গাড়ী চালক।

মজনুর ছোট ভাই প্রবাসী মফিজের স্ত্রী মাহমুদা বলেন, মফিজ, তার শ্বাশুড়ী রুপবানু এবং সে ওই বাড়ীর দ্বিতীয় তলায় একটি প্লাটে থাকেন। অন্যদিনের মত রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন।

মা রুপবানু বলেন, গভীর রাতে আমার ঘরে দু’টি লোক প্রবেশ করে আমার এবং মফিজের স্ত্রী মাহমুদার হাত পা বেধে মজনুর কক্ষে যায়। পরে তাদের সাতে আরেকজন যোগ হয়। আমি তাদেরকে সবকিছু নিয়ে যেতে বলি, কিন্তু আমার ছেলের যেন কোন ক্ষতি না করে। পরবর্তীতে সংঘবদ্ধ দূর্বৃত্তরা মজনুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলার মধ্যে আঘাত করে হত্যা করে মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায়। তারা ঘরে থাকা সকল জিনিসপত্র তছনছ করে ফেলে রাখে।

মজনুর প্রবাস ফেরৎ আরেক ভাই মন্টু জানায়, তিনিও একই বাড়ীতে থাকেন। মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) ভোরে ঘরের দরজা খোলা দেখে প্রবেশ করেন এবং সবকিছু এলোমেলে দেখে স্থানীয় কাউন্সিলার এমরান হোসেনকে জানান। এমরান হোসেন তাৎক্ষনিক বিষয়টি হাজীগঞ্জ থানা পুলিশকে জানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে