May 27, 2022, 12:54 pm


২০২৩ সালের নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে :ড. মো. আলমগীর কবির পাটওয়ারী

স্টাফ রিপোর্টার॥
হাজীগঞ্জ উপজেলা সাবেক বিএনপির সভাপতি ও হাজীগঞ্জ মডেল সরকারি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ, শিক্ষাবিদ ড. মো. আলমগীর কবির পাটওয়ারী বলেছেন, ২০১৮ সালের নিশিরাতের নির্বাচনে এই সরকার জগদ্বল পাথরের মতো গণমানুষের বুকে চেপে আছেন। ২০২৩ সালের নির্বাচনে আমরা তা হতে দিতে চাইনা। বাংলাদেশের কোটি কোটি মানুষ ২০২৩ সালের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্য উম্মুখ হয়ে তাকিয়ে আছে। তারা তাকিয়ে আছেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রতি। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের দল। শহীদ রাষ্ট্রপতির জিয়াউর রহমানের সৈনিকদের প্রতি সারাদেশের কোটি কোটি মানুষ শহীদ জিয়াউর সৈনিকদের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় বর্তমানে রয়েছে। আগামী ২০২৩ সালের নির্বাচনকে কোন অবস্থাতে বিগত সময়ের নির্বাচনের মতো করতে দেয়া হবেনা। ২০২৩ সালের নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে।

তিনি শনিবার বিকেলে শাহরাস্তি বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনা, চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) আসনের প্রাক্তন সংসদ সদস্য এম এ মতিন ও শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি মরহুম দেলোয়ার হোসেন মিয়াজীর ও প্রয়াত বিএনপির নেতৃবৃন্দের স্বরণে ইফতার ও দোয়া মাহফিলের পূর্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে এ সরকার থেকে নির্বাচন আদায় করা অনেক কঠিন। এ জন্য বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের মাঝে ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। এ ইস্পাত কঠিন ঐক্যের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় পর্যায় থেকে এবাং তারেক জিয়া সাহেব যে ঘোষণা দেবেন সে ঘোষনার বাস্তবায়নের প্রেক্ষিতে নিরপেক্ষ সরকারের মাধ্যমে যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, সেই নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল অধিকাংশ সংসদীয় আসনে বিপুল ভোটে জয় লাভ করবে। সেই বিজয়ের মালা সমুন্নত রাখার লক্ষে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের বর্তমান কাণ্ডারী, আগামী দিনের রাষ্ট্রনায়ক তারেক জিয়া বলেছেন যে, নির্বাচনে আমরা যদি জয় লাভ করি, আমাদের যারা সম পর্যায়ে, সমব্যথি, সমগণতান্ত্রিক অধিকারে যারা, রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামে নিবেদিত থাকবেন তাদের নিয়ে জাতীয় সরকার গঠণ করার ঘোষণা দিয়েছেন। আমরা যদি জাতীয় সরকার গঠনের মাধ্যমে নির্বাচনকে পুনঃউদ্ধার এদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে সমুন্নত রেখে গণজাগরণ সৃষ্টি করতে পারি, তাহলে আমাদের আন্দোলন স্বার্থক হবে, আমাদের বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া অচিরেই কারামুক্ত হবেন। ম্যাডাম খালেদা জিয়ার যেখানে চিকিৎসা দরকার দেশে -বিদেশে সেখানেই করতে পারবো।

ড. মো. আমলমগীর কবির পাটওয়ারী জেলা বিএনপির সভাপতি সদ্য কারামুক্ত নেতা শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

বিএনপির নেতা শেখ বেলায়েত হোসেন সেলিমের সভাপতিত্বে, উপজেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান পাটোয়ারী ও উপজেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি সাইফুল করিম মিনারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে
প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মুনির চৌধুরী।

মুনির চৌধুরী তার বক্তব্যে বলেন, আগামীতে হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি আসনের বিএনপির কাণ্ডারী হবেন হাজীগঞ্জ মডেল সরকারি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ, শিক্ষাবিদ ড. মো. আলমগীর কবির পাটওয়ারী। তিনি সু-শিক্ষিত একজন রাজনীতিবিদ। ইতোমধ্যে তিনি হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে তার কার্যক্রম পরিচলনা শুরু করেছেন।

তিনি বলেন, বিএনপির মধ্যে যারা, গ্রুপিং তৈরী করবে। তাদের স্থান বিএনপিতে নেই। আসুন কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দলের ঐক্য ধরে রাখি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সেলিমুস সালাম, শাহরাস্তি পৌরসভার সাবেক মেয়র মোঃ মোস্তফা কামাল, জেলা জামায়াতের সহ সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাওলানা আবুল হোসাইন, উপজেলা জামায়াতের আমির মোঃ মোস্তফা কামাল, দেলোয়ার হোসেন মিয়াজীর একমাত্র সন্তান হৃদয়, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক জোবায়ের আল নাহিয়ান রাজু, সদস্য সচিব তানভীর।

ইফতার মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির নেতা মোঃ আলী হোসেন, সাহাদাত হোসেন মাস্টার, উপজেলা শ্রমিক দলের সভাপতি কাউন্সিলর আঃ কুদ্দুস রানা, উপজেলা মৎস্য জীবী দলের সভাপতি শাহ আলম, ছাত্রদল নেতা শাহজাহান সম্রাট প্রমূখ।

ইফতার মাহফিলে প্রয়াত বিএনপির নেতৃবৃন্দ ছাড়াও দলের সভানেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করা হয়।

ইফতার মাহফিলে শাহরাস্তি উপজেলা ও পৌর বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের প্রায় ৩ সহস্রাধীক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে