September 17, 2021, 7:33 pm


বিজনেসপার্ক-ট্রেড সেন্টার।

বিজনেস পার্ক ট্রেড সেন্টার-ই হবে জেলায় কেনা-কাটা প্রেমিদের সেরা মার্কেট

মো. মহিউদ্দিন আল আজাদ:

হাজীগঞ্জে বিজনেস পার্ক-ট্রেড সেন্টার-ই হবে চাঁদপুর জেলার কেনা-কাটা প্রেমিদে সেরা মার্কেট। এমনটাই বিশ^াস করেন এ মার্কেটের প্রতিষ্ঠাতা হাজীগঞ্জ মডেল সরকারি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ড. মো. আলমগীর কবির পাটওয়ারী। তিনি বলেন, এক মার্কেটে সব ধরণরে পণ্য কেনা-কাটা করার পরিবেশ সৃষ্টি করতে সব রকমের পরিকল্পনা হাতে নিয়েই বিজনেস পার্ক-ট্রেড সেন্টার মার্কেট দ্রুত উদ্বোধনের দিকে এগিয়ে জাচ্ছে।

এ মার্কেটটি (বিজনেস পার্ক ট্রেড সেন্টার) হাজীগঞ্জে অরো একটি অনন্য, ঐতিহ্য বহন করে জেলার মধ্যে কেনা-কাটার মূল আর্কষণ হবে ইনশাআল্লাহ। হযরত মকিমউদ্দিন (রহ.) শপিং সেন্টার ভবনের কাজ দ্রুত শেষ করতে দিন-রাত ২৪ ঘন্টা শ্রমিকরা শিফটে কাজ করে যাচ্ছে। ভবনের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। অবশ্য যারা বিজনেস পার্কে দোকান বুকিং দিয়েছিলেন তাদেরকে ১ ডিসেম্বর থেকে দোকান হস্তান্তর শুরু করেছি।

পর্যায়ক্রমে হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদ কমপ্লেক্স, আহমাদ আলী পাটওয়ারী (রহ.) ওয়াক্ফ এস্টেটের অধীনে নির্মিত ভবনে প্রায় ৩ শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য দোকান ও স্পেস অতি দ্রুত হস্তান্তর করা লক্ষ্যে পরিশ্রম করে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে যারা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরীণ ডেকোরেশনের কাজ শুরু করেছেন এবং শুরু করবেন তাদের জন্য প্রথম ৩মাস বিদ্যুৎ ফ্রি করে দিয়েছি।

আশা করি আমাদের এ ক্ষুদ্র প্রয়াসে বিনিয়োগ কারীদের সাহস যোগাবে।এছাড়া কাজ শেষে এ আধুনিক মার্কেট“বিজনেস পার্ক ট্রেড সেন্টার উদ্বোধন হলে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের মধ্যে একটি পরিচিত উপজেলা হিসাবে হাজীগঞ্জ আরো অনে দূর এগিয়ে যাবে- ইনশাআল্লাহ।

সরেজমিনে জানা যায় , বিজনেস পার্ক মার্কেটে শুধু কেনা-কাটাই নয় থাকছে সকল শ্রেণি পেশা মানুষের শারীরিক ও মানষিক সুষ্ঠু বিকাশের জন্য রয়েছে, বিনোদন , স্টেজপ্রোগ্রাম জোন, ফুডকোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার, স্কাইভিউ রেস্টুরেন্ট, আধুনিক মানের হাসপাতাল। বেইচমেন্টে রয়েছে পার্কিংয়ের ব্যবস্থা। । ১ম ও ২য় তলায় থাকবে কাপড়, গার্মেন্ট্স আইটেম, কসমেটিক্স, মার্কেটের পেছনের অংশে থাকবে জুতার দোকান।

৩য় তলায় থাকবে মোবাইল মার্কেট, ইলেকট্রিক এন্ড ইলেকট্রনিক্স ও কোকারিজ’সমুহের শো-রুম। ৪র্থ তলায় থাকবে অত্যাধুকি চায়না মার্কেট (ওপেন মার্কেট)। ভবনের প্রথম তলা থেকে ৪র্থ তলা পর্যন্ত থাকছে অত্যাধুনিক এস্কেলেটর এবং দ্রুত চলা-চল করার জন্য রয়েছে অত্যাধুনিক উন্নত মানের লিফ্ট। ৫ম তলায় রয়েছে আধুনিক ও উন্নত মানের ফুডকোর্ট, ৬ষ্ঠ, ৭ম ও ৮ম তলায় থাকছে আধুনিক মানের হসপিটাল এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তার চেম্বার। ৯ম ও ১০ম তলায় রয়েছে স্টার মানের আধুনিক আবাসিক হোটেল। ১১ তলায় থাকছে ক্যাটারিং ও হলরুম, জি¦ম সেন্টার। ১২তলায় থাকবে সুইমিংপুল, স্কাই ভিউ রেস্টুরেন্ট হাসপাতালে দ্রুত রোগী আনা নেয়ার জন্য নির্মিত হবে হ্যালিপ্যাড। এ ছাড়াও থাকবে নারী কর্নার, বিউটি পার্লার।অবশ্য নারী কর্নারে শুধু নারীদের জন্যই থাকবে সকল আয়োজন। সেখানে সেল্সম্যান থেকে শুরু করে সকল কাজ নারীরাই করবে। আরো থাকবে শিশু বিনোদন জোন।এক মার্কেটেই সব ধরণের পণ্য ক্রেতারা কিনে হবেন ধন্য।যদি তা বাস্তবায়ন হয় ,তাহলে বিজনেস পার্ক মার্কেট হাজীগঞ্জ বাসীকে ধন্য করবে। এমনটাই আশা করছেন হাজীগঞ্জের সাধারণ মানুষ।

দোকান ও স্পেস অতি দ্রুত হস্তান্তর করা লক্ষ্যে পরিশ্রম করে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে যারা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরীণ ডেকোরেশনের কাজ শুরু করেছেন এবং শুরু করবেন তাদের জন্য প্রথম ৩মাস বিদ্যুৎ ফ্রি করে দিয়েছি। এছাড়া মার্চ ২০২০ থেকে ফেব্রুয়ারি ২০২১পর্যন্ত প্রথম একবছর ভাড়া ফ্রি ঘোষণা দিয়েছি ।আশা করি আমাদের এ ক্ষুদ্র প্রয়াসে বিনিয়োগ কারীদের সাহস যোগাবে।এছাড়া কাজ শেষে এ আধুনিক মার্কেট“বিজনেস পার্ক ট্রেড সেন্ট” উদ্বোধন হলে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের মধ্যে একটি পরিচিত উপজেলা হিসাবে হাজীগঞ্জ আরো অনে দূর এগিয়ে যাবে- ইনশাআল্লাহ।

সরেজমিনে জানা যায় , বিজনেস পার্ক মার্কেটে শুধু কেনা-কাটাই নয় থাকছে সকল শ্রেণি পেশা মানুষের শারীরিক ও মানষিক সুষ্ঠু বিকাশের জন্য রয়েছে, বিনোদন, স্টেজপ্রোগ্রাম জোন, ফুডকোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার, স্কাইভিউ রেস্টুরেন্ট, আধুনিক মানের হাসপাতাল। বেইচমেন্টে রয়েছে পার্কিংয়ের ব্যবস্থা। । ১ম ও ২য় তলায় থাকবে কাপড়, গার্মেন্ট্স আইটেম, কসমেটিক্স, মার্কেটের পেছনের অংশে থাকবে জুতার দোকান।

৩য় তলায় থাকবে মোবাইল মার্কেট, ইলেকট্রিক এন্ড ইলেকট্রনিক্স ও কোকারিজ’সমুহের শো-রুম। ৪র্থ তলায় থাকবে অত্যাধুকি চায়না মার্কেট (ওপেন মার্কেট)। ভবনের প্রথম তলা থেকে ৪র্থ তলা পর্যন্ত থাকছে অত্যাধুনিক এস্কেলেটর এবং দ্রুত চলা-চল করার জন্য রয়েছে অত্যাধুনিক উন্নত মানের লিফ্ট। ৫ম তলায় রয়েছে আধুনিক ও উন্নত মানের ফুডকোর্ট, ৬ষ্ঠ, ৭ম ও ৮ম তলায় থাকছে আধুনিক মানের হসপিটাল এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তার চেম্বার। ৯ম ও ১০ম তলায় রয়েছে স্টার মানের আধুনিক আবাসিক হোটেল। ১১ তলায় থাকছে ক্যাটারিং ও হলরুম, জি¦ম সেন্টার। ১২তলায় থাকবে সুইমিংপুল, স্কাই ভিউ রেস্টুরেন্ট হাসপাতালে দ্রুত রোগী আনা নেয়ার জন্য নির্মিত হবে হ্যালিপ্যাড।

এ ছাড়াও থাকবে নারী কর্নার, বিউটি পার্লার।অবশ্য নারী কর্নারে শুধু নারীদের জন্যই থাকবে সকল আয়োজন। সেখানে সেন্সম্যান থেকে শুরু করে সকল কাজ নারীরাই করবে। আরো থাকবে শিশু বিনোদন জোন। এক মার্কেটেই সব ধরণের পণ্য ক্রেতারা কিনে হবেন ধন্য। যদি তা বাস্তবায়ন হয় ,তাহলে বিজনেস পার্ক মার্কেট হাজীগঞ্জ বাসীকে ধন্য করবে। এমন টাই আশা করছেন হাজীগঞ্জের সাধারণ মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে