September 17, 2021, 7:06 pm


হাইমচরে পারিবারিক কলহে স্বামীর মৃত্যু, স্ত্রী আটক

চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলার গন্ডামারা গ্রামের পারিবারিক কলহে জেরে আরমান (২৭) নামে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

গত ২৫ আগষ্ট বুধবার রাত ১১ টায় আরমান এর বাড়ী হতে লাশ উদ্ধার করেছে হাইমচর থানা পুলিশ।

তার পিতা তোফায়েল মুন্সী’র অভিযোগের ভিত্তিতে হাইমচর থানা পুলিশ আরমানে স্ত্রী সাথী আক্তার (২৫)কে আটক করেছে।

আরমানে পিতা তোফায়েল মুন্সী (কবিরাজ) এর অভিযোগপত্র এজাহার হিসেবে হাইমচর থানায় একটি হত্যা মামলা দ্বায়ের করা হয়েছে।

এজাহারে তোফায়েল মুন্সী (কবিরাজ) ছেলের বউ ও তার বাবার বাড়ীর লোকজন নিয়ে আরমান কে হত্যা করেছে।

গত বুধবার সন্ধ্যা ৭ টায় হাইমচর উপজেলার গন্ডামারা গ্রামের তোফায়েল কবিরাজ ছেলে আরমান এর সাথে তার স্ত্রী সাথীর মধ্যে কলহ হয়, আরমান এর স্ত্রী সাথী ফরিদগঞ্জ উপজেলার বিশকাটালী গ্রামের মনা মিয়া গাজী কন্যা।

এ ব্যাপারে মামলার বাদি তোফায়েল মুন্সী (কবিরাজ) জানান, আমার ছেলে কাজ করে দেরিতে আসায় ছেলের সাথে তার বউ এর ঝগড়া হয়, ২ জনের মধ্যে ঝগড়ায় সন্ধ্যায় লোকজন দিয়ে আরমান কে মেরে সাথী আমাকে খবর দেয় আমাী ছেলে ফাঁসি দিয়েছে। আমার ছেলের মাথার থেকে রক্ত পড়তেছে। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই। এর আগে এ বউ ঘরে আগুন লাগিয়ে দিয়ে বাপের বাড়িতে চলে যায়। তাদের মধ্যে প্রায় ঝামেলা লেগে থাকতো।

এ ব্যাপারে হাইমচর মোঃ মাহবুবুর রহমান মোল্লা জানান, নিহত আরমানের পিতা বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রধান আসামীকে আটক করতে সক্ষম হয়। বাকী আসামীদের ধরার অভিযান চলমান রয়েছে। মৃত দেহ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুরে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহত আরমানের শরীরে বিভিন্ন স্থানে কাটা, ফাটা, জখম রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে