Monday , 17 June 2024
অধ্যক্ষ ---

অধ্যক্ষ মো.হারুন-অর রশিদের বিদায় সংবর্ধনা

চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী শাহতলী জিলানী চিশতী কলেজ গভর্নিং বডির আয়োজনে কলেজের অধ্যক্ষ মো. হারুন-অর রশিদ এর অবসরজণিত বিদায় উপলক্ষে সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৪ মে সকাল ১১টায় কলেজের মিলনায়তনে কলেজের নবাগত ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো.গোলাম সারওয়ারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কলেজ গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান এবং দৈনিক চাঁদপুর খবর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল রুশদী।

প্রধান অতিথি কলেজ গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান এবং দৈনিক চাঁদপুর খবর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল রুশদী বক্তব্য বলেন,‘আজকে কলেজের অধ্যক্ষ হারুন সাহেবের অবসরজণিত বিদায় দিনটি খুবই বেদনাবিধুর ও গুরুত্বপূর্ণ। প্রায় ৩০ বছরের উর্ধ্বে তিনি এ প্রতিষ্ঠানে দায়িত্ব পালন করেছেন। সদরের প্রথম বেসরকারি কলেজ এটি। এ কলেজে ২০ বছর প্রভাষক ও ১০বছরের বেশি সময় তিনি দক্ষতার সহিত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেছেন। উনার সবচেয়ে ইতিবাচক দিক- তিনি প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত উপস্থিত থাকতেন। প্রতিষ্ঠানের জন্য ছিলেন নিবেদিত ।গভর্নিং বডি,অফিস, শিক্ষকবৃন্দগণের সাথে সমন্বয করে কাজ করেছেন। কলেজে নতুন ভবন নির্মাণের সময় আমাকে যথেষ্ট সহযোগিতা করেছেন তিনি । ‘

তিনি বলেন, বিদায়ী অধ্যক্ষ মো.হারুন- অর রশিদ সাহেব ছিলেন খুবই বিনয়ী ও নিরঅহংকার। তার মানবিক মূল্যবোধ খুবই শক্তিশালী ছিল। বিদায় অত্যন্ত কষ্টের ও এটি সরকারি বিধির বিধান। অত্যন্ত সফল ভাবে তিনি উনার দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি সম্মানের সহিত বিদায় নিচ্ছেন, এটা উনার সবচেয়ে বড় সফলতা। আমি তার অবসরজণিত জীবনে সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ূ কামনা করছি। আমি কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করছি প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী ও বর্তমান সমাজকল্যাণমন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি’মহোদয়কে। যিনি আমাদের কলেজে ভবন নির্মাণ করে দিয়েছেন। এজন্য আমরা মন্ত্রী মহোদয়ের কাছে কৃতজ্ঞ।

অনুষ্ঠানে বিদায়ী বক্তব্য রাখেন কলেজের বিদায়ী অধ্যক্ষ মো.হারুন-অর রশিদ।

কলেজের বিদায়ী অধ্যক্ষ মো.হারুন-অর রশিদ বক্তব্যে বলেন,‘ আজ আমার কর্মজীবনের শেষ দিন। মহান আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম এটি আহমেদ হোসাইন রুশদীর আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। আমি দীর্ঘ ৩০বছর ২মাস ২৬দিন কলেজে আমার দায়িত্ব পালন করেছি। ১৯৯৩সালে আমি প্রভাষক (রসায়ন) পদে যোগদান করেছি। পরে ২০১৪সালে ২৭মার্চ অধ্যক্ষ পদে যোগদান করেছি। রুশদী পরিবারের কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ ও ঋণী।

তিনি আরও বলেন,‘ আজকের অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সভাপতি সাংবাদিক সোহেল রুশদী সা এ কলেজে ভবন নির্মাণের জন্য তার পরিবার থেকে নতুন করে জমি দান করেছেন। আমি সাংবাদিক সোহেল রুশদী সাহেবের প্রতি কৃতজ্ঞ। সবসময়ই তিনি আমাকে সহযোগিতা করেছেন । কলেজের জন্য কি করেছি জানি না,যা করতে পারিনা তার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী। শিক্ষকরা ছিল আমার পরিবারের সদস্যের মতো। শাসন তারই সাঝে,সোহাগ জানে যে। এ কলেজের ফলাফল আপনারা ধরে রাখবেন। শিক্ষকরা আমাকে সহযোগিতা করেছেন। গভর্নিং বডি ও এলাকাবাসী আমাকে সহযোগিতা করেছেন। প্রতিষ্ঠানের উত্তরোত্তর উন্নতি হউক এ প্রত্যাশা করি।’

উত্তর শাহতলী যোবাইদা বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও গভনিং বডির সদস্য মো.আবুল কালাম আজাদের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন শাহতলী কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ বিলাল হোসাইন,জিলানী চিশতী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষক মো.মোহসিন উদ্দিন,কলেজের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী অধ্যাপক সাহেরা আক্তার,গভনিং বডির সদস্য সিনিয়র প্রভাষক নুরুন্নাহার বেগম মুক্তা,সহকারী অধ্যাপক ফারজানা আক্তার,সহকারী অধ্যাপক মো.জিয়াউর রহমান,সহকারী অধ্যাপক মো.হানিফ মিয়া,সহকারী অধ্যাপক মো.জহিরুল ইসলাম খান মুরাদ, উত্তর শাহতলী যোবাইদা বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও প্রক্তান গভনিং বডির অভিভাবক সদস্য মো.দিদার হোসেন মিজি, অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. হারুন অর রশিদ এর মেঝ ছেলে মো.তৌফিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দ্বাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের ছাত্রী আফরিন আক্তার।

৫ মে ২০২৪
এজি

এছাড়াও দেখুন

Dc sir ====

৫ দফা দাবিতে চাঁদপুর লেখক পরিষদের স্মারকলিপি পেশ

চাঁদপুর লেখক পরিষদ এর নেতৃবৃন্দ সাহিত্য একাডেমির সকল সাধারণ সদস্য (যারা জীবিত) বহাল রাখা,দ্বিতীয় দফায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *