Tuesday , 25 June 2024
marriage

বিয়ের আগে এ ৫ বিষয়ে আলোচনা করে নেয়া জরুরি

বিয়ে জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। তাই এ ক্ষেত্রে তাড়াহুড়ো করাটা একেবারেই উচিত নয়। হবু সঙ্গীর সাথে বিবাহপূর্ব কথোপকথন অত্যন্ত জরুরি বিষয়। যাকে বিয়ে করবেন বলে ভাবছেন,তাকে ভালো মতো জেনে-বুঝে তবেই বিয়ের ব্যাপারে ইতিবাচক মত দেয়া উচিত।

এতে পরবর্তী জীবন সফল ও সুখের হয়। জেনে নিন ৫টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে,যা অবশ্যই বিয়ের আগে সঙ্গীর সাথে আলোচনা করে নেয়া উচিত।

১। অনেক ক্ষেত্রেই সঠিক আর্থিক পরিকল্পনার অভাবে বিয়ে পরবর্তী সংসারে অশান্তি শুরু হয়। তাই বিয়ের আগেই আর্থিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করে নেয়া জরুরি। বিবাহিত জীবন শুরু করার জন্য আর্থিকভাবে স্থিতিশীল এবং নিরাপদ হতে হবে দু’জনকেই।

দ্বন্দ্ব এবং ভুল বোঝাবুঝি এড়াতে নিজেদের আয়, ঋণ এবং বিনিয়োগ সম্পর্কে খোলামেলা আলোচনা করে নিন। আর্থিক বিষয়ে একে অন্যের বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে জেনে নিন।

২। নিজেদের জীবনের লক্ষ্য সম্পর্কে আলোচনা করে নিন। সফল দাম্পত্য জীবনের জন্য জীবন সম্পর্কে একটি যৌথ দৃষ্টিভঙ্গি গড়ে তোলা জরুরি। তাই নিজেদের স্বপ্ন এবং দর্শন নিয়ে আলোচনা গুরুত্বপূর্ণ।

৩। গাঁটছড়া বাঁধার আগে আপনার বাগদত্তার সামাজিক অবস্থা এবং পারিবারিক পটভূমি বিবেচনা করা গুরুত্বপূর্ণ। একে অপরের সংস্কৃতি,ঐতিহ্য এবং পারিবারিক মূল্যবোধ বোঝা খুব জরুরি।

এগুলো সফল দাম্পত্য জীবনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিয়ের পর অন্যের পরিবারের সঙ্গে থাকতে হলে সেটা নিয়েও দু’পক্ষের খোলামেলা আলোচনা জরুরি।

৪। পরিবার পরিকল্পনা হচ্ছে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা। বিয়ের আগে পরিবার পরিকল্পনা নিয়ে অবশ্যই আলোচনা করে নেয়া উচিত।

৫। আপনার কাজের প্রকৃতি আপনার ব্যক্তিগত জীবন এবং সম্পর্ককে প্রভাবিত করতে পারে। কাজের পছন্দ এবং চ্যালেঞ্জগুলো সম্পর্কে আলোচনা কর্ম-জীবনের ভারসাম্য বজায় রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

স্বামী-স্ত্রী উভয়কেই একে অপরের ক্যারিয়ার সম্পর্কে বুঝতে হবে ও সমর্থন করতে হবে।

১০ মার্চ ২০২৪
এজি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *