Tuesday , 25 June 2024
election

চাঁদপুরে জমজমাট নির্বাচনি প্রচারণা

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ র্নিবাচনের প্রচার-প্রচারণা জমে উঠেছে ইলিশের জেলা চাঁদপুরে। এখন প্রার্থীরা রাত-দিন গণসংযোগে পথসভা ও উঠান বৈঠক করে ব্যাস্ত সময় পার করছেন। দেখা গেছে বুধবার সকাল থেকে রাত অবধি প্রার্থীরা নিজ-নিজ প্রচারণা চালাচ্ছেন।

চাঁদপুর সদর আসনের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা.দীপু মনি ইব্রাহিমপুর ইউনিয়নে নির্বাচনি উঠোন বৈঠকে বক্তব্য দিতে গিয়ে বলেছেন-‘শেখ হাসিনার সরকার ঘরে-ঘরে শতভাগ বিদ্যুৎ দিয়েছেন চাঁদপুরে মেডিকেল কলেজ,বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,মেরিন একাডেমি, আধুনিক নৌ-টার্মিনালসহ ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে।’

তিনি বলেন-‘জেলায় বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে উঠলে এ অঞ্চলের বেকার যুবকরা চাকরি পাবে। আগামিতে আরো উন্নয়নের জন্য নৌকায় ভোট দিন। নৌকা প্রতীকের নির্বাচনি প্রচারে উঠান বৈঠক ও নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

দীপু মনি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন,‘ চাঁদপুর সদর আসনে ৫ লাখ ৯ হাজার ভোটার। আপনারা বাড়ি গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট চান।’

এদিকে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ও কচুয়া আসনে নৌকার প্রার্থী ড.সেলিম মাহমুদ উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ ডুমুরিয়া বাজারে গণসংযোগ শেষে পথসভায় বলেছেন-‘আগামি ৭ জানুয়ারি জাতীয় নির্বাচন,এ নির্বাচন আমাদের অর্থনীতি রক্ষার নির্বাচন,আমাদের অর্থনীতি রক্ষা পেলে আমরা এ দেশের সকল মানুষ ভালো থাকবো।’

তিনি বলেন- জননেত্রীর শেখ হাসিনার নৌকা মার্কায় ভোট দিতে সারাদেশের মানুষ উদগ্রীব হয়ে আছে। আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার একজন প্রতিনিধি। এ নৌকার মালিক আমি নই, এ নৌকার মালিক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও জননেত্রী শেখ হাসিনা। একই দিনে তিনি কালচোঁ, সাদিপুরা,চাঁদপুর,নলুয়া,আকানিয়া এলাকায় পৃথক গণসংযোগ ও পথসভায় বক্তব্য রাখেন।’

চাঁদপুর-৫ শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জ আসনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মেজর (অব.)রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম বলেছেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়ে বারবার পাঠিয়েছেন। আপনারা আমাকে প্রতিনিধি হিসেবে জয়যুক্ত করেছেন। এ নৌকার মালিক আপনারা,আমি আপনাদের পক্ষে নৌকাকে ধারণ করি। এ নৌকা বঙ্গবন্ধুর,এ নৌকা স্বাধীনতার প্রতীক।

আওয়ামী লীগের আমলে দেশে অনেক উন্নয়ন হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন,‘এলাকায় বিদ্যুৎ ছিল না এলাকায় ঘরে-ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে গেছে। অসংখ্য রাস্তা ঘাট ব্রিজ-কালভার্ট নির্মাণ করেছি। আপনাদের জন্য দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ে নির্মাণ করেছি। আপনাদের ভোটে নির্বাচিত হয়ে জীবনের শেষ দিনটি পর্যন্ত মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাবো। কোনো অপশক্তি বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না। রাষ্ট্র ও জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য আপনাদের এক একটি ভোট গুরুত্বপূর্ণ তাই ঘরে বসে থাকবেন না,কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে হবে। নিজ মেহের মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত জনসভায় তিনি এ কথা বলেন।’

এছাড়াও চাঁদপুর-৫ নির্বাচনি এলাকার স্বতন্ত্র প্রার্থী মো.সফিকুল আলম ফিরোজ ট্রাক প্রতীকে ভোট চেয়ে উপজেলার রায়শ্রী উত্তর ও দক্ষিণ ইউনিয়নে গণসংযোগ এবং পথসভা করেছেন। জননেত্রী সুযোগ দিয়েছেন বলেই আমরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। আমরা দুর্দিনে জানবাজী রেখে সংগঠন করেছি। এবার জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদেরকে উম্মুক্তভাবে ভোটাধিকারের স্বাধীনতা দিয়েছেন ।

হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান গাজী মো.মাঈনুদ্দিন ঈগল প্রতীকে ব্যাপক গণসংযোগ করেছেন। তিনি হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তির প্রায় সব স্থানেই গণসংযোগ ও পথসভা করেছেন। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের চাঁদপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক মো.মনির হোসেন মজুমদার মশাল প্রতীকে সংযোগ করেছেন।

৪ জানুয়ারি, ২০২৪
এজি

এছাড়াও দেখুন

Prince

সাপ্তাহিক হাজীগঞ্জ‘র সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতির ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা

ঈদ মোবারক। আগামি ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ জুন ২০২৪ এবং ১০ জিলহজ্জ ১৪৪৫ হিজরি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *