Wednesday , 19 June 2024
ELISH

এবার ৬ লাখ মে.টন ইলিশ উৎপাদনের সম্ভাবনা

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো.গোলাম মেহেদী হাসান বলেছেন,‘ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় চাঁদপুর অভয়াশ্রম এলাকায় মার্চ-এপ্রিল দু’মাসের অভিযান কঠোরভাবে পালিত হয়েছে। জেলেদের নদীতে নামতে দেয়া হয়নি। যার ফলে জাটকা চাঁদপুর অতিক্রম করে আবার সাগরে যেতে পেরেছে। সম্মিলিতভাবে অভিযান পরিচালনা করায় আশা করছি এবার লক্ষ্যমাত্রার ৬ লাখ ম্যাট্রিক টন ইলিশ উৎপাদন হবে । ‘

বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের তিন নদীর মোহনা ও আশপাশের এলাকা জেলা টাস্কফোর্স বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযান শেষে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়ে বক্তব্য দেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা।

তিনি বলেন,‘এ বছর ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোল্লা এমদাদুল্যাহ এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ১০টি স্পিডবোট দিয়ে দিন ও রাতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। রমজান মাসেও জেলা-উপজেলা প্রশাসন,আমাদের মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী, কোস্টগার্ড ও নৌ-পুলিশ নদীতে অবস্থান করেন। যে কারণে অন্য জেলার জেলেরা নদীতে নামতে পারেনি। এরপরেও নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যেসব জেলে নদীতে নেমেছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের আইনের আওতায় আনা হয়েছে।’

অভিযান চলাকালে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা সদরের আনন্দ বাজার জেলে পল্লি এলাকায় জেলেদের সাথে অভিযান সম্পর্কে মতামত জানেন এবং তাদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন।

চাঁদপুর সদর উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো.তানজিমুল ইসলাম,সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মো.মিজানুর রহমান,মো.জামিল হোসেন,কোস্টগার্ড ও নৌ-পুলিশের কর্মকর্তা এবং সদস্যরা অভিযানে অংশগ্রহণ করেন।

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৫ এপ্রিল ২০২৪
এজি

এছাড়াও দেখুন

Academy --

সাহিত্য একাডেমি চাঁদপুরের সাধারণ সদস্য হলেন যাঁরা

সাহিত্য একাডেমির চাঁদপুর এর নবঘটিত সদস্য অন্তর্ভুক্তি কার্যক্রমে ৭৬ জন প্রাথমিক সদস্য থেকে ৬৯ জনকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *