July 27, 2021, 5:50 am


চাচার সাথে অবৈধ সম্পর্ক: শিক্ষার্থী জন্মদিলো ফুটফুটে পুত্র সন্তান

কচুয়া প্রতিনিধি:

চাঁদপুরে কচুয়ায় ভাতিজীর গর্ভে চাচার সন্তান প্রসব হওয়ায় এলাকার চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, কচুয়া উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের মথুরা গ্রামের মিয়াজীর বাড়ির আমির হোসেনের ছেলে জাকির হোসেনের (৩৩) সাথে জগতপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণি পড়ুয়া আপন ভাতিজীর দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ সম্পর্ক চলে আসছিল।

এক পর্যায়ে চাচার সাথে অবৈধ মেলা-মেশায় ভাতিজী সন্তান সম্ভবা হলে চতুর চাচা জাকির হোসেন সুকৌশলে ভাতিজীকে তার নানার বাড়ি ঢাকার টঙ্গীতে পাঠিয়ে দিয়ে সে পাশ্ববর্তী নাউপুরা গ্রামে বিয়ে করে নেয়।

সরেজমিনে গেলে স্থানীয়রা জানায়, জাকির হোসেন মেয়েটির সম্পর্কে সৎ চাচা। একই বাড়ির বাসিন্দা ও পাশাপাশি ঘর হওয়ায় জাকির হোসেন যখন-তখনই ভাতিজির ঘরে আসা যাওয়া করতো।

ভাতিজির সাথে কথাবার্তা বলার এক পর্যায়ে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে ভাতিজির সাথে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এতে ভাতিজি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

মেয়েটির নানার বাড়ি টঙ্গীতে মাস খানেক পূর্বে ফুটফুটে পুত্র সন্তান প্রসব করে। সন্তান প্রসবের পর তাকে কুমিল্লা শহরের জনৈক ব্যক্তির নিকট দত্তক দেয়া হয়।

দত্তক গ্রহীতা সন্তানটি দত্তক বিষয়ে কাগজপত্র সম্পাদন করতে বলে। এরই প্রেক্ষিতে গত ১৩ নভেম্বর মেয়েটি কুমিল্লার কুচাইতলী হাসপাতালের সামনে কাগজপত্র সম্পাদনের জন্য গেলে সন্তানটির জম্মদাতা পিতার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিলে মেয়েটি কৌশল করে জাকির হোসেনকে ঘটনাস্থলে নিয়ে আসে।

এ সময় জাকির হোসেন নিজেকে সন্তানটির পিতা ও সন্তানের মাকে তার স্ত্রী হিসেবে দাবি করলে মেয়েটি বলে- ‘আমি আপনার কীভাবে স্ত্রী হই, আপনি তো আমার চাচা!’

এতে উপস্থিত লোকজন তাদের প্রতি সন্দেহ হলে কুমিল্লার কোতয়ালী থানার পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে জাকির হোসেন ও মেয়েটিকে (সন্তানের মাকে) আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পরে তাদেরকে আটক করার বিষয়টি কচুয়া থানাকে অবহিত করলে কচুয়া থানা পুলিশ তাদেরকে নিয়ে এসে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের ৯ (১/১৩) ধারায় মামলা দায়ের করে। মামলা নং ১৪।

মামলা দায়েরের পর দিন জাকির হোসেনকে কোর্টে সোপর্দ করার মধ্য দিয়ে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রতিবেশি জানান, চাচা জাকির হোসেনের যৌন লালসার শিকার ভাতিজী। মেয়েটির মা মোরশেদা বেগম সৌদি প্রবাসী।

দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকায় চাচা জাকির হোসেন ভাতিজীর সাথে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পরে। তার দুই ভাই। বড় ভাই ব্যবসার কাজে ঢাকায় থাকে। বাড়িতে থাকেন ১৩/১৪ বয়সী ছোট ভাই ও তার বাবা। চাচা-ভাতিজির এ দৈহিক সম্পর্কের ঘটনায় এলাকার জনমনে প্রচন্ড ক্ষোভ ও নিন্দার সৃষ্টি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে