December 5, 2020, 3:11 pm


বটতলী সড়ক নির্মানের বছর না যেতে চলাচলে দূরাবস্থা

নিজস্ব প্রতিনিধি:

চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের পল্লীবিদ্যুৎ বটতলী সড়ক নির্মানের বছরের মাথায় ভাঙ্গনের কবলে। ছৈয়াল বাড়ি ব্রিজ থেকে দক্ষিন দিকের বেশ কিছু রাস্তায় ভাঙ্গনের কবলে বেহাল দশায় জনর্দুভোগ চরম আকার ধারন করে। এতে করে আশপাশের মানুষসহ দূরদূরান্ত থেকে আসা পথচারীদের যাতায়াতে ব্যাঘাত ঘটে।

সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, পল্লীবিদ্যুৎ বটতলী সড়কটি গত বছর মেরামত করা হয়, কিন্তু নির্মান কাজের অনিয়মের কারনেই বছরের মাথায় সড়টির ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে। এ সড়ক দিয়ে প্রতিনিয়নত শাহতলী জিলানী চিশতী কলেজ, জিলানী চিশতী উচ্চ বিদ্যালয়, শাহতলী কামিল মাদ্রাসা, শাহতলী রুপালী ব্যাংকসহ বেশ কয়েকটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক শিক্ষিকা ও শত শত শিক্ষার্থী যাতায়েত করছে।

এ ছাড়াও উচ্চ শিক্ষা অর্জনের জন্য চাঁদপুর সরকারি কলেজে, হাজিঞ্জে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের যাতায়েতের একমাত্র পথ হচ্ছে এ সড়কটি। এ সড়কটির গুরুত্ব এতই অপরীসিম যে সংবাদ শিরোনামে তা তুলে ধরা সম্ভাব নয়।

চাঁদপুর শহড় থেকে মাত্র ৬থেকে ৭ কিলো দূরত্ব হচ্ছে এ সড়কটি। তাই জীবিকার টানে এ সড়ক দিয়ে শাহমাহমুদপুরের দক্ষিন অঞ্চলসহ পাশের ইউনিয়ন কিছু মানুষ এ সড়ক দিয়ে যাতায়েত করতে হচ্ছে। আর এ সব মানুষ প্রতিনিয়ত জীবনের সাথে যুদ্ধ করে যাতায়েত করছে। এ সড়কটি বর্তমানে ভেঙ্গে মরণফাঁধে পরিনত হচ্ছে।

এ ছাড়া ও সড়কটি দিয়ে প্রতিনিয়ত ছোট বড় বিভিন্ন ধরনের যানচলাচল করে। কিন্তুু সড়কটি হাছু বাড়ি থেকে ছৈয়াল বাড়ির ব্রিজ পর্যন্ত ভেঙ্গে জমিতে পড়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। এ ছাড়া ও বিভিন্ন স্থানে গর্ত সৃষ্টি হয়ে যান চলাচলের বেঘাত ঘটছে। এতে করে এখানকার মানুষের জীবন যাত্রামান হাঁফিয়ে উঠেছে।

স্থানীয়রা অভিযোক করে বলেন এ সড়কটি এ অঞ্চলের মানুষের জন্য অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ সত্ত্বে ও ঠিকাদার নিম্মমানের কাজ করে চলে গেছে। তাই সড়কটি দ্রুত মেরামতের জন্য উপজেলা প্রকৌশলী বিভাগের গুরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে