October 28, 2020, 8:37 pm


যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে ও সাইবার বুলিং প্রতিরোধে প্রধান শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময়

বিশেষ প্রতিনিধি:

ব্র্যাকের সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচি পরিচালিত ‘মেয়েদের জন্য নিরাপদ নাগরিকত্ব (মেজনিন)’ প্রকল্পের উদ্যোগে যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে ও সাইবার বুলিং প্রতিরোধ শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে চাঁদপুর ব্র্যাক আঞ্চলিক কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে (শাহীনা মিনি টাওয়ার, টেকনিক্যাল স্কুলের পাশে) মেজনিন প্রকল্পের অন্তর্ভূক্ত ২৪টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের অংশগ্রহণে এই সভার আয়োজন করা হয়।

ব্র্যাক জেলা সমন্বয়কারী মো: জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জনাব মো. কামাল হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা যৌন হয়রানি নির্মূলকরণ নেটওয়ার্কের নির্বাহী সদস্য ও ওয়াইডব্লিউসিএর সাধারন সম্পাদক পাপড়ী বর্মন।

ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচির সিনিয়র জেলা ব্যবস্থাপক কালাচাঁদ দাস অসিতের পরিচালনায় সভার শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ব্র্যাক জেলা সমন্বয়কারী মো: জিয়াউর রহমান, জেলা যৌন হয়রানি নির্মূলকরণ নেটওয়ার্কের নির্বাহী সদস্য মনীন্দ্র বর্মন। যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে, সাইবার বুলিং এবং নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে স্কুল প্রধানদের ভূমিকার উপর গুরুত্ব দিয়ে ব্র্যাক এই সভার আয়োজন করে।

প্রধান অতিথির উদ্বোধনী বক্তব্য ও পরিচয় পর্ব শেষে সভার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যসহ মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচি’র সেক্টর স্পেশালিষ্ট দেবাশীষ হালদার। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনের পর যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে, সাইবার বুলিং প্রতিরোধে পারস্পারিক অভিজ্ঞতা বিনিময় এবং সহযোগিতার ক্ষেত্র চিহ্নিতকরণ বিষয়ে মুক্ত আলোচনা পর্বে সকল অংশগ্রহণকারী আলোচনা করেন।

শিক্ষকদের মাধ্যে বক্তব্য রাখেন মো. মনির আহম্মেদ সিদ্দিকী, মো: রেজাউল করীম, মো: মুজিবর রহমান, মো: আনোয়ার হোসেন, মো: খোরশেদ আলম, মো: কাওসার আহম্মেদ, কাজী সুমাইয়া আাক্তার, মো: হোসাইন, মো: কামরুল হাসান গাজী, আবু তপাদার ও মো: ইমাম হোসেন।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো: কামাল হোসেন বলেন, আমরা নৈতিক শিক্ষা ও ধর্মীয় মূল্যবোধ নিয়ে অনেক কথা বললাম কিন্তু আমি মনে করি সবার আগে শিক্ষকদের নিজের নৈতিকতাকে অক্ষুন্ন রাখতে হবে। হাইকোর্ট নির্দেশিত কমিটি গঠন করতে হবে এবং সেই কমিটিকে সক্রিয় রাখতে কাজ করতে হবে। স্কুলে অভিযোগ বক্স স্থপন ও তা যথাযথ ব্যবহার করতে হবে।

শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, আমরা যেন প্রত্যকে যার যার নিজের অবস্থান থেকে যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে, সাইবার বুলিং প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সচেতনতা ও সংবেদনশীলতা তৈরি এবং ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে পারি। আর তা যদি সম্ভব হয় তাহলে এই ধরনের সভা সেমিনার করার আর কোন প্রয়োজন হবে না। সেই সাথে শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক, স্থানীয় কমিউনিটির উদ্যোগী ব্যক্তি, জনপ্রতিনিধি, গণমাধ্যম প্রতিনিধি এবং আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সম্পৃক্তকরণের মাধ্যমে সমাজে সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারি। তিনি ছাত্র শিক্ষক ও অভিভাবক সম্পর্ককে জোড়দার করার উপর শিক্ষকদের গুরুত্ব প্রদানের জন্য আহ্বান জানান।

সভাটি আয়োজনে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেন কর্মসূচি’র জুনিয়র সেক্টর স্পেশালিস্ট মো: আফছার উদ্দিন। এ ছাড়াও ব্র্যাকের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন মানব সম্পদ কর্মকর্তা ফৌজিয়া খানম ও শাহ মো: ইমরান খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে