September 29, 2020, 11:27 pm


গার্মেন্টস মালিক-শ্রমিকদের জন্য বড় সুখবর

করোনার প্রভাবের পর সুদিন আসতে চলেছে দেশের পোশাক শিল্পখাতে। করোনায় বাতিল হয়ে যাওয়া কয়েক’শ কোটি টাকার কার্যাদেশ আবার দিতে শুরু করেছেন আন্তর্জাতিক ক্রেতারা। তবে যত দ্রুত সম্ভব চাহিদা অনুযায়ী পোশাক পাঠাতে পারবে, ততো বেশি কার্যাদেশ দেয়ার শর্ত দিচ্ছে তারা।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে বন্ধ হয়ে যায় গার্মেন্টস পণ্যের জাহাজিকরণ। ফেব্রুয়ারি মাসে দেখা দেয় কাঁচামালের সংকট। আর মার্চ এবং এপ্রিল মাসে আসতে থাকে আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের কার্যাদেশ স্থগিতের পাশাপাশি বাতিলের নির্দেশ। তবে বর্তমানে ধীরে ধীরে পরিস্থিতি পাল্টাতে শুরু করেছে বলে দাবি বিজিএমইএ নেতাদের। বিজিএমইএ পরিচালক অঞ্জন শেখর দাশ বলেন, ২৬ এপ্রিলের পর থেকে বায়ারদের সাথে আমাদের যোগাযোগ হতে শুরু করেছে। বায়াররা গত দু’মাসে স্থগিতের পাশাপাশি বাতিল হয়ে যাওয়া কয়েক’শ কোটি টাকার কার্যাদেশ আবার দিতে শুরু করেছে। গত দু’মাসে ঢাকা ও চট্টগ্রামের গার্মেন্টসগুলোর অন্তত ৩শো কোটি ডলারের কার্যাদেশ আটকে যায়। এ অবস্থায় মে মাসের শুরুতে গার্মেন্টস কারখানাগুলো খুলতে শুরু করলে যোগাযোগ বাড়াতে থাকে ক্রেতারা। এতে আশার আলো দেখছেন ব্যবসায়ীরা। বিজিএমইএ সহ সভাপতি এ এম চৌধুরী সেলিম বলেন, সময় চাচ্ছেন কখন মাল দেয়া যাবে, মানে পজিটিভভাবেই তারা আসছেন। ইতোমধ্যে কার্যাদেশ অনুযায়ী, মালামালও পাঠাতে শুরু করেছেন অনেক গার্মেন্ট মালিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে