August 12, 2020, 9:07 am


হাজীগঞ্জে করোনায় বাবা ছেলের পর এবার চলে গেলেন বড় বোনও

গাজী মহিনউদ্দিন:

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে একই পরিবারে বাবা ও ছোট ভাইয়ের মৃত্যুর পর এবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে বড় বোনও। এ ঘটনায় নিহতের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনসহ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

গত শুক্রবার (৫ জুন) সকাল ৯টায় ছেলে আব্দুল আউয়াল (৫০) করোনা উপসর্গ নিয়ে নিজ বাড়ীতে মারা যান। এর পরের শুক্রবার (১২ জুন) সকাল ৯টায় তার বাবা আবুল কাশেম প্রকাশ লেদা মিয়াও (৭৫) করোনা উপসগে মৃত্যুবরণ করেন।

গত ১৪ জুলাই আবদুল আউয়ালের বড় বোন কামরুননাহার (৫০) করোনা উপসর্গে মৃত্যুবরণ করেন। তার জ্বর ও শ্বাস কষ্ট দেখা দিলে শাহমিরানা হাসপাতালে আনলে হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার কামরুননাহারকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

১৮ জুলাই তার করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

মৃত আব্দুল আউয়াল রুবেল হাজীগঞ্জ পৌর যুবদলের আহবায়ক পদে দায়িত্বরত ছিলেন। তিনি গত ৪ জুন (বৃহস্পতিবার) করোনা পরীক্ষায় হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা জমা দিয়ে আসেন। এর পরের দিন ৫জুন (শুক্রবার) সকালে তিনি মারা যান। একই উপসর্গে আজ শুক্রবার সকালে তার বাবাও মারা যান। মৃত আব্দুল আউয়াল হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন ৬নং ওয়াড মকিমাবাদ গ্রামের সদার বাড়ির বাসিন্দা। আবদুল আউয়ালের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ এসেছিল।

মাত্র একসপ্তাহের বাবা-ছেলের মৃত্যুর পর মাত্র এক মাসের ব্যবধানে একই পরিবারের আরেকজনের মৃত্যুতে নিহতের পরিবার, নিকট আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশীসহ নিজ গ্রাম মকিমাবাদ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এইচ এম শোয়েব আহমেদ চিশতী জানান, ১৮ জুলাই পর্যন্ত হাজীগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ১৪১জন। এর মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছে ১৭জন। সুস্থ্য হয়েছে ৬০জন।

শুধু ১৮ জুলাই হাজীগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে মৃত্যু কামরুন নাহারসহ ৬জন। এর মধ্যে ১জন স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে পৌরসভার ৩জন ও ইউনিয়নের ৩জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে