August 12, 2020, 8:48 am


আর্থিক সংকটে পাকিস্তানের ক্রিকেট কোচ এখন ট্যাক্সি ড্রাইভার

অনলাইন ডেস্ক:

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে আর্থিক সংকটে পড়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নানা পেশার মানুষ। ক্রীড়াঙ্গনেও করোনা প্রভাব পড়েছে। ক্রিকেট কোচিং পেশা আপাতত ছেড়ে দিয়ে ট্যাক্সি ড্রাইভিং করছেন ইমরান খট্টক।

সম্প্রতি পাকিস্তানের জিও সুপার টিভিকে ওয়াহাব রিয়াজ, সালমান বাট ও আইজাজ চিমার এ অভিজ্ঞ কোচ বলেছেন, জীবন ভালোভাবেই চলছিল। আমি একটি কোম্পানির কোচ হিসেবে যুক্ত ছিলাম। পাশাপাশি একাডেমিতে প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছিলাম। মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে সব ধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম বন্ধ। এ জন্য নিজের ব্যক্তিগত গাড়িটি ট্যাক্সি হিসেবে বানিয়ে উপার্জন করতে হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, করোনার মধ্যেই একটি স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে ইংল্যান্ডে ক্রিকেট ফিরেছে। পাকিস্তান কেন এখনও তেমন কিছু করছে না? পিসিবির কাছে আমার অনুরোধ, দ্রুত এমন কিছু করতে হবে যেন আমরা কোচরা আমাদের মূল পরিচয়ে ফিরতে পারি।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কোচিং কোর্সের লেভেল টু শেষ করা ইমরান খট্টক দীর্ঘ ১০ বছর মডেল টাউন গ্রিনসে কাজ করছেন। যেখানে পাকিস্তানের বড় দলগুলো ট্রেনিং করে। পাশাপাশি অবসরে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও তার কাছে বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ নিতে আসেন। কিন্তু করোনায় খেলাধুলা বন্ধ থাকায় খারাপ সময় কাটাচ্ছেন কোচরাও। এ জন্য বাধ্য হয়েই ট্যাক্সি ড্রাইভার হয়েছেন ইমরান খট্টক।

পাকিস্তানে ঘরোয়া ক্রিকেট ফের শুরু করার পাশাপাশি কোচিংয়ের অনুমতি দেয়ার আহ্বান জানিয়ে ইমরান খট্টক বলেছেন, ঘরোয়া এবং বিভাগীয় ক্রিকেট ফের শুরু করা উচিত। খেলা বন্ধ থাকায় খেলোয়াড়, কোচ কর্মকর্তাসহ অনেকেই এখন বেকার হয়ে পড়েছে। আমাদের মতো পেশাদার কোচদের জন্য একটি নীতিমালা তৈরি করা দরকার যাতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও কোচিং করানো যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে