December 6, 2021, 3:22 pm


ফরিদগঞ্জে মাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি:

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে নিমর্মভাবে মাকে কুপিয়ে হত্যা করলো পাষণ্ড ছেলে। মাকে হত্যা করে পাষণ্ড ছেলে পালিয়ে গেলেও এলাকাবাসির সহযোগিতায় পুলিশ খুনিকে আটক করে। আটম মনি দেওয়ান  খুবই উশৃঙ্খল বলে এলাকাবাসি জানান।

ঘটনাটি পৌর এলাকার পশ্চিম বড়ালি গ্রামে ২৭ অক্টোবর বুধবার ভোরে ঘটে। পুলিশ নিহত মনোয়ারা বেগম(৬৫) এর লাশ উদ্ধার করেছে। ঘটনা সর্ম্পকে বিস্তারিত জানাতে বুধবার দুপুর ১২টায় ফরিদঘঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ প্রেসকনফারেন্স করবেন বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার পশ্চিম বড়ালি গ্রামের মরহুম আবুল হাশেমের ছেলে মমিন দেওয়ান বুধবার (২৭ অক্টোবর) ভোরে তার মা মনোয়ারা বেগমের ঘরে ঢুকে তাকে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে । তাৎক্ষনিক ঘাতক মমিনকে ধরতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘাতকের ছবি পোস্ট করে থানা অফিসার ইনচার্জ। ফলে সকালে পৌর এলাকার ভাটিরগাও গ্রামে তাকে হাটতে দেখে স্থানীয় জনতা তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

স্থানীয়রা জানায়, এক সন্তানের জনক মমিন ইতিপুর্বে একটি হত্যাকা- ঘটিয়েছে। সে মানসিক ভাবে কিছুটা বিকারগ্রস্থ। প্রায়শই লোকজনকে হত্যা করার হুমকি দিত।

ঘাতক মমিনের ভাগিনা আশিক জানায়, তার নানী মনোয়ারা বেগম ও তার বোনকে মামা মমিন প্রায়ই মেরে ফেলার হুমকি দিতো।

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শহিদ হোসেন জানান, মাকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা জানতে পেরে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করি। অন্যদিকে আমরা তাকে ধরতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি পোস্ট করলে তাকে ভাটিরগাও এলাকা থেকে আটক করতে সক্ষম হই। ঘাতক মমিন ইতিপুর্বে একটি হত্যা মামলার আসামী। তিনমাস পুর্বে সে জেল থেকে জামিনে বেরিয়ে আসে। সেই থেকে সে মা ও তার ভাগ্নিকে হত্যার হুমকি দিতো। হত্যাকা-ে ব্যবহৃত দা উদ্ধার করা হয়েছে। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে