July 6, 2020, 10:53 am


ফাইল ছবি।

ইসলামী ব্যক্তিত্বের গুণ-বৈশিষ্ট্য

আল্লাহ্‌ তাআলা মুসলমানের জন্য এমন কিছু গুণাবলী নির্ধারণ করেছেন, যেগুলোর মাধ্যমে তাদের সহজেই অন্যদের থেকে পৃক করা যায়। (১) মুসলমান আকীদা ও বিশ্বাসে দৃঢ় :—
মুসলিম আল্লাহ্‌কে প্রভু, ইসলামকে ধর্ম ও মোহাম্মদ (সঃ) কে নবী ও রাসূল হিসেবে বিশ্বাস করে। আল্লাহ্‌, তদীয় ফেরেশতাকুল, কিতাব, রাসূলগণ, আখেরাত ও ভাল-মন্দ তাকদীরের উপর বিশ্বাস রাখে। ঈমানের ভিত্তির উপর একজন মুসলমান জীবনকে পরিচালিত করে, যা তাকে আচার-ব্যবহার, চলাফেরা, উদ্দেশ্য-লক্ষ্য ও লেনদেনে দিক নির্দেশনা দেবে। এর উপরই প্রতিষ্ঠিত হবে তার জীবন-জীবিকা ও সময়। নির্ধারিত হবে তার দৃষ্টিভঙ্গি এবং তার কাজকর্ম চলবে সুস্পষ্ট প্রামাণ্যতার উপর, যাতে কোন প্রকার পরিবর্তন, পরিবর্ধন ও চিন্তা-বিভ্রান্তি থাকবে না।

ইসলাম এ বিষয়টির উপরই বিশেষ জোর দিয়েছে ; কেননা এ জীবনে মানুষের চলার সূচনা কি হবে সেটা একমাত্র ইসলামই নির্ধারণ করতে পারে।

আল্লাহ্‌ তাআলা বলেন—
فَاعْلَمْ أَنَّهُ لَا إِلَهَ إِلَّا اللهَُّ وَاسْتَغْفِرْ لِذَنْبِكَ وَلِلْمُؤْمِنِينَ وَالمُْؤْمِنَاتِ ﴿ ١٩ ﴾ (سورة
( محمد: ١٩
‘সুতরাং তুমি জেনে রাখ, আল্লাহ্‌ ছাড়া (প্রকৃত) কোন মাবুদ নেই, ক্ষমা প্রার্থনা কর তোমার এবং মুমিন নর-নারীদের ত্র“টির জন্যে।’৩

আল্লাহ্‌ তাআলা বলেন—
آَمَنَ الرَّسُولُ بِمَا أُنْزِلَ إِلَيْهِ مِنْ رَبِّهِ وَالمُْؤْمِنُونَ كُلٌّ آَمَنَ بِاللهَِّ وَمَلَائِكَتِهِ وَكُتُبِهِ وَرُسُلِهِ لَا
نُفَرِّقُ بَيْنَ أَحَدٍ مِنْ رُسُلِهِ وَقَالُوا سَمِعْنَا وَأَطَعْنَا غُفْرَانَكَ رَبَّنَا وَإِلَيْكَ المَْصِيرُ
( ٢٨٥ ﴾ (سورة البقرة : ٢٨٥ ﴿
৩ মুহাম্মদ : ১৯
‘রাসূল বিশ্বাস রাখেন ঐ সমস্ত বিষয় সম্পর্কে যা তার পালনকর্তার পক্ষ থেকে তার নিকট অবতীর্ণ হয়েছে, এবং মুসলমানরাও। সবাই বিশ্বাস রাখে আল্লাহ্‌র প্রতি, তার ফেরেশতাদের প্রতি, গ্রন্থসমূহের প্রতি এবং তার পয়গম্বরগণের প্রতি। তারা বলে : আমরা তাঁর রাসূলগণের মাঝে কোন তারতম্য করি না। তারা বলে : আমরা শুনেছি এবং কবুল করেছি, আমরা তোমার ক্ষমা
চাই হে আমাদের পালনকর্তা। তোমারই দিকে প্রত্যাবর্তন করতে হবে।’৪

আল্লাহ্‌ তাআলা আরো বলেন—
وَلَقَدْ بَعَثْنَا فِي كُلِّ أُمَّةٍ رَسُولًا أَنِ اُعْبُدُوا اللهََّ وَاجْتَنِبُوا الطَّاغُوتَ فَمِنْهُمْ مَنْ هَدَى اللهَُّ
وَمِنْهُمْ مَنْ حَقَّتْ عَلَيْهِ الضَّلَالَةُ فَسِيرُوا فِي الْأَرْضِ فَانْظُرُوا كَيْفَ كَانَ عَاقِبَةُ
( المُْكَذِّبِينَ ﴿ ٣٦ ﴾ (سورة النحل : ٣٦
‘আমি প্রত্যেক উম্মতের মাঝেই রাসূল প্রেরণ করেছি এই মর্মে যে, তোমরা আল্লাহ্‌র এবাদত কর এবং তাগুত থেকে নিরাপদ থাক।  তঃপর তাদের মাঝে কিছু সংখ্যককে আল্লাহ্‌ হেদায়েত দান করেছেন এবং কিছু সংখ্যকের জন্য বিপথগামিতা অবধারিত হয়ে গেছে।সুতরাং তোমরা পৃথিবীতে ভ্রমণ কর এবং দেখ মিথ্যারোপকারীদের কিরূপ পরিণতি হয়েছে।’৫

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে